লাইফ স্টাইল

Displaying 141-160 of 663 results.
শিশু কেন খেতে চায় না?

শিশু কেন খেতে চায় না?

হ-বাংলা নিউজ: বাচ্চা খেতে না চাইলে বেশি জোর করবেন না। মডেল: সায়েম হায়দার। ছবি: খালেদ সরকার

বেশির ভাগ মায়েরই অভিযোগ—বাচ্চা খেতে চায় না। কিছু কিছু রোগের কারণে শিশুদের রুচি কমে যেতে পারে, কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ব্যাপারটা অত জটিল কিছু নয়। অনেক ক্ষেত্রেই এ বিষয়ে মা-বাবার উৎকণ্ঠা থাকে। হয়তো শিশু তার রুচি ও পরিমাণ অনুযায়ী ঠিকই খাচ্ছে, কিন্তু মা-বাবা তাতে তৃপ্ত হচ্ছেন না। শিশুর আসলে কোনো রোগ নেই, সমস্যাটা তার মনে। বয়স অনুযায়ী মানসিক ও শারীরিক বিকাশ অন্য বাচ্চাদের মতো হলে শিশুর খাওয়া নিয়ে মা-বাবার দুশ্চিন্তা করার কিছু......

সাদা–কালোয় অনুভূতি প্রকাশ

সাদা–কালোয় অনুভূতি প্রকাশ

বিশেষ দিন, আবেগ বা অনুভূতি প্রকাশ করা যায় সাদা ও কালো রঙের পোশাক দিয়ে। মডেল: বেনজীর, পোশাক: সাদাকালো, সাজ: পারসোনা, ছবি: কবির হোসেন

সাদা ও কালো। যদি বলি এই দুটি আলাদা কোনো রং নয়, চমকে উঠতে পারেন অনেকেই। বিজ্ঞান বলছে সাদা ও কালো এই দুটি একক কোনো রং নয়। সাদা রং তৈরি করে সূর্যরশ্মি। সূর্যের আলো যখন প্রিজমের মধ্য দিয়ে যায়, তখন লাল-সবুজ-নীল—এই তিন রং দেখা যায়। তা অনেক আগেই প্রমাণ করেছেন বিজ্ঞানী স্যার আইজাক নিউটন। আবার সাতরঙা গোলাকার শক্ত কোনো কাগজ বা বোর্ড জোরে ঘুরতে থাকলে দেখা যায় সব রংই উধাও—সাদা একটা কিছু চোখে পড়ছে।

বিজ্ঞানীরা বলেন আলোর অনুপস্থিতি হলো কালো। আবার িশল্পীদের......

পোষা প্রাণী শিশুদের জন্য কতটা ভালো?

পোষা প্রাণী শিশুদের জন্য কতটা ভালো?

বাড়িতে পোষা প্রাণী এখন খুবই স্বাভাবিক ব্যাপারে দাঁড়িয়ে গেছে। অজগর সাপ থেকে বাঘ-সিংহের মতো হিংস্র প্রাণী যেমন মানুষ পুষে আবার নানা ধরনের শান্তিপ্রিয় প্রাণী যেমন পাখি, কুকুর-বিড়ালও পুষে থাকে।

ছোট ছোট পরিসরে করা একাধিক গবেষণায় পোষা প্রাণীকে শিশুর শারিরীক ও মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী বলে দাবি করা হয়েছে।  

এমন দাবিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে নতুন একটি গবেষণা। বেশ বড় আকারের সেই গবেষণায় বলা হয়েছে, পোষা প্রাণীর চেয়ে পরিবারের আর্থিক অবস্থা, বাড়ির ধরন/পরিবেশই শিশুর শারিরীক ও মানসিক স্বাস্থ্যে প্রভাব ফেলে বেশি। অলাভজনক সংস্থা র‌্যান্ড কর্পোরেশন ও র‌্যান্ড হেলথের......

এই তিনটি কারণে প্রসবকালে মায়ের মৃত্যু হতে পারে

এই তিনটি কারণে প্রসবকালে মায়ের মৃত্যু হতে পারে

অনেক সময় চোখের পলকে সুখ বদলে যায় দুঃখে। পালটে যায় জীবনের ধারা। যেখানে খুশির অবস্থান হওয়ার কথা ছিল সে জায়গা নিয়ে ফেলে দুঃখ। প্রসবের সময় যেখানে সমগ্র পরিবার নতুন সদস্যকে অভিনন্দন জানাবে বলে অপেক্ষা করে থাকে, সেখানে যদি কোনও দুঃসংবাদ আসে তাহলে সেই পরিবারের উপর দিয়ে কী যেতে পারে তা হয়তো কেউ আন্দাজ করতে পারবেন না। তাই তো চিকিৎসকেরা বলে থাকেন প্রাসবকালীন সময়ে শুধু বাচ্চার নয়, মায়েরও সমানভাবে খেয়াল রাখাটা জরুরি। কারণ দেখা গেছে আমাদের দেশে জন্মের সময় যেহারে শিশুর মৃত্যু হয়, তার থেকে অনেক বেশি হয় মায়ের মৃত্যু।

শিশু জন্ম দেওয়ার পরে যদি মায়ের মৃত্যু ঘটে তাহলে তা কতটা......

বৃষ্টিতে সম্পর্ক যেভাবে মধুর হবে

বৃষ্টিতে সম্পর্ক যেভাবে মধুর হবে

বৃষ্টির দিনে প্রিয়জনের সান্নিধ্যে মধুর সময় কাটাতে পারেন। ছবিটি প্রতীকী।

রিমঝিম বৃষ্টি। কাজের চাপ যতই থাকুক, রোমান্টিক অনুভূতি কি আপনাকে নাড়া দিচ্ছে না? আর একটু যদি ফুরসত মেলে, সঙ্গীকে নিয়ে বৃষ্টিবিলাসে গা ভাসাতে কি মন চায় না? বৃষ্টির দিনে ঘরে থেকেও কীভাবে দুর্দান্ত সময় কাটতে পারেন, জেনে নিন:

জমিয়ে আড্ডা

বৃষ্টির দিনে আপনার সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ও যন্ত্রগুলোকে ছুটি দিন। বৃষ্টি আপনার পুরো দিন আর পরিকল্পনা নষ্ট করেছে—এ কথা ভুলে যান। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়া বা কোনো অনুষ্ঠানে যাওয়ার চিন্তা না করে ঘরে সঙ্গীকে নিয়েই বসে পড়ুন খেলতে। দাবা, লুডু, তাস বা যেকোনো......

ট্রাম্প-মেলানিয়ার প্রেম যেমন ছিল

ট্রাম্প-মেলানিয়ার প্রেম যেমন ছিল

হ-বাংলা নিউজ: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের সম্পর্ক নিয়ে মানুষের মধ্যে কৌতূহলের শেষ নেই। প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার সময় খবর বেরিয়েছিল—ট্রাম্প ও মেলানিয়া এক ঘরে থাকেন না। তবে এবারের খবর হলো চুটিয়ে প্রেম করার সময় তাঁদের গোপন যৌন সম্পর্কের তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

ব্রিটিশ অনলাইন ইনডিপেনডেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, একটি রেডিও স্টেশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেলানিয়া নিজেই ট্রাম্পের সঙ্গে গোপন যৌন সম্পর্কের কথা ফাঁস করে দিয়েছেন। তবে ১৯৯৯ সালে দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারটি সম্প্রতি......

সুসম্পর্ক বজায় রাখতে....

সুসম্পর্ক বজায় রাখতে....

জীবনে সুখী হতে এবং একটি সুখী সংসারের স্বপ্ন সবাই দেখে। এক্ষেত্রে কেউ কেউ সফল হলেও অনেকেই ব্যর্থ হন। আসলে প্রতিটি সম্পর্ক হলো চর্চার বিষয়। দম্পতি হিসেবে যত নিখুঁত হোন না কেন, সুসম্পর্ক বজায় রাখতে প্রত্যেককেই কিছু অভ্যাস অনুসরণ করতে হয়। সুখী দম্পতিরা কিছু বিষয় মেনে চলেন বলেই তারা সুখী। তারপরও সংসারে নানা টানাপোড়েন আসেই। এই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠার দায়িত্ব কিন্তু কারও একার নয়। এক্ষেত্রে সুসম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে দুজনকেই উদ্যোগী হতে হয়।

এক্ষেত্রে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে যা করবেন, যা করবেন না-

সবসময় সাহায্য করবেন না

জীবনে চলার পথে সুসময় কিংবা দুঃসময়ে একে অপরের পাশে......

ভালো ঘুমাতে ডায়াবেটিস রোগীদের করণীয়

ভালো ঘুমাতে ডায়াবেটিস রোগীদের করণীয়

ডায়াবেটিস রোগীদের বেশিরভাগই রাতে ভালোমতো ঘুমাতে পারেন না। আনুমানিক ৪০-৫০ ভাগ ডায়াবেটিস রোগীই নিদ্রাহীনতায় ভোগেন। কম ঘুমানোর ফলে তাদের রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যায়। শুধু তাই নয়, নিদ্রাহীনতা তাদের মেজাজ এবং স্বাস্থ্যের উপরও ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। এমনটিই জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের লুইস স্টোকস কিভল্যান্ড ভিএ মেডিক্যাল সেন্টারের স্লিপ ডিসওর্ডারের পরিচালক ডা. কিংম্যান স্ট্রল। তিনি বলেছেন, ডায়াবেটিস রোগীদের সবার আগে ঘুমকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত। কারণ ভালো ঘুমই তাদের রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

কাজেই জেনে নিন ডায়াবেটিস রোগীদের ভালো ঘুমানোর......

নিজের দোষটা স্বীকার করুন

নিজের দোষটা স্বীকার করুন

ঘরের মানুষ কিংবা বাইরের, পরিচিত এই মানুষগুলোর সঙ্গে চলার পথে দেখা দেয় মনোমালিন্য। তাতেই চেনা মানুষগুলোর সঙ্গে তৈরি হয়ে যায় দূরত্ব। ‘কেন সে আমার ব্যাপারটি বুঝল না?’ বাদ-বিবাদের পর কথাটি আমরা বলে থাকি। কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন আপনার নিজের কোনো দোষ আছে কি না? কিংবা আপনি নিজের সেই দোষ স্বীকার করছেন কি না?

স্বীকার করুন নিজের দোষটাও

কথা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সুলতানা আলগিনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘দু-তিনজন ব্যক্তির মধ্যে যখন দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়, তখন শুধু এক পক্ষকে আমরা দায়ী করে থাকি। বিষয়টা কিন্তু একেবারেই......

বলিরেখা ও চোখের কোণে ভাঁজ

বলিরেখা ও চোখের কোণে ভাঁজ

সবাই তরুণ বা যৌবনদীপ্ত থাকতে চায়। এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মুখম-লের চারপাশে কুঞ্চন বা বলিরেখার (ঋধপব ডৎরহশষব) সৃষ্টি হয়, যা সবচেয়ে বেশি দেখা যায় কপাল ও চোখের চারপাশে। একে বলা হয় ক্রোফিট বলিরেখা বা চোখের কোণে ভাঁজ।

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের ত্বকের ভেতরে ডার্মিস স্তর পাতলা হতে থাকে এবং কোলাজেন ও অন্যান্য ফাইরের পরিমাণ কমতে থাকে। এতে ত্বক ঢিলে হয়ে যায়, ভাঁজ পড়তে শুরু করে। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের শুষ্কতা বাড়ে, যা ভাঁজের জন্য কিছুটা দায়ী। এ ছাড়া অতিরিক্ত রোদে বা সূর্যালোকে কাজ করা, ধূমপান, পরিবেশ দূষণ, পারিবারিক ইতিহাস, মানসিক চাপ, অতিবেশি ভেজাল......

ওজন কমছেই না!

ওজন কমছেই না!

খাবার সামনে নিয়ে দুশ্চিন্তা না করে পরিমিত পরিমাণে খান। ছবি: অধুনা

ওজন কমানোর জন্য ক্যালরির হিসাব করছেন, খুব ব্যায়াম করছেন, তারপরও ওজন কমছে না কিছুতেই। কিন্তু কেন? এর কারণ হতে পারে অনেক কিছু। তবে সেগুলোর গোড়ায় যে ব্যাপারটি রয়েছে, সেটি হচ্ছে অভ্যাস।

আপনি কি স্বাস্থ্যকর খাবার খাচ্ছেন?

মানুষভেদে স্বাস্থ্যকর খাবারের ধরনও বদলায়। কারও কারও কাছে বাড়ির খাবার মানেই স্বাস্থ্যকর, কারও কাছে হালকা খাবার স্বাস্থ্যকর। আসলে স্বাস্থ্যকর খাবার কোনটি, সে বিষয়ে স্টাডি লেখক এবং পিএইচডির প্রার্থী আলিয়া ক্রাম বলেন, যে খাবার আপনাকে আরাম দেবে, পরিষ্কার ও পুষ্টিকর হবে এবং আপনার......

অফিসে কাজের টেনশন দূরে রাখার উপায়

অফিসে কাজের টেনশন দূরে রাখার উপায়

সুস্থ জীবনের জন্য রোজগার দরকার। এই রোজগারের জন্য দেখা যায় মানুষ নিজের বাড়ির থেকে বেশি সময় কাটায় অফিসে।

অফিসে কাজের চাপ নিতে গিয়ে বিস্তর মানসিক চাপ নিতে হয় সবাইকে। এই মানসিক চাপ ধীরে ধীরে জন্ম নেয় দুশ্চিন্তার। এর ফলে মানুষের মধ্যে দেখা দেয় বিরক্তি এবং খিটখিটে মনোভাব। শেষ পর্যন্ত টেনশনের জন্ম নেয় মানুষের মনে। ক্রমশ গুরুতর মানসিক রোগ গ্রাস করতে থাকে। বিশিষ্ট মনস্তাত্ত্বিক বিশেষজ্ঞরা কয়েকটি উপায়ের কথা জানিয়েছেন যার মাধ্যমে সহজেই দূর হবে অফিসের দুশ্চিন্তার চাপ।

১)‌ কাজ নিয়ে দুশ্চিন্তা না করে পরিকল্পনার মাধ্যমে কাজ করুন। দরকার হলে প্রতিদিন ডায়রিতে লিখে......

কবুতর বাড়াচ্ছে ডিভোর্সের হার!

কবুতর বাড়াচ্ছে ডিভোর্সের হার!

হ-বাংলা নিউজ: ইন্দোনেশিয়ার একটি প্রদেশে বেড়ে যাচ্ছে ডিভোর্সের হার। আর সেখানকার জনপ্রিয় কবুতর খেলার প্রতি মানুষের ভালোবাসাকেই ডিভোর্সের জন্য দায়ী করা হচ্ছে।  

সেন্ট্রাল জাভা প্রদেশের পূর্বালিঙ্গা রিলিজিয়াস কোর্টের একজন কর্মকর্তা দেশটির সংবাদ মাধ্যম জাকার্তা পোস্টকে জানিয়েছেন, তাদের অফিসে জুলাই মাসেই অন্তত ৯০টি ডিভোর্সের পিটিশন হয়েছে। অথচ জুন মাসে এই সংখ্যাটা ছিল মাত্র ১৩।

কোর্ট-এর একজন কর্মকর্তা নূর আফলাহ বলছেন, যারা ডিভোর্সের পিটিশন করছেন তারা সবাই নারী। তারা অর্থনৈতিক বিষয়কে কারণ হিসেবে......

চায়ে চুমুক দেওয়ার আগে মাথায় রাখুন কয়েকটি বিষয়

চায়ে চুমুক দেওয়ার আগে মাথায় রাখুন কয়েকটি বিষয়

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে শুরু। এর পরে সারাদিন একাধিকবার অনেকেই চা পান করেন। চা পান করা শরীরের পক্ষে উপকারী না ক্ষতিকারক, তা নিয়ে অনেকরকম কথাই শোনা যায়। তার মধ্যে যেমন কিছু বিজ্ঞানসম্মত ব্যাখ্যা রয়েছে, তেমন কিছু ভুল ধারণাও রয়েছে।

ভারতীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালের ডায়েটিশিয়ান রেখা চন্দ্রাকর জানিয়েছেন, চা পান করার সময়ে কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখা অবশ্যই প্রয়োজন। তা হলেই চা পানের উপকারিতা পাওয়া যাবে। চায়ের পুষ্টিগুণগুলি শরীরে যাবে। আর চা পানের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকেও রক্ষা পাওয়া যাবে।

• চায়ের পাতা, দুধ এবং চিনি একসঙ্গে ফুটিয়ে চা বানাবেন না। প্রথমে পানি ফোটান,......

রূপচর্চায় চালের গুঁড়া

হ-বাংলা নিউজ: চালের গুঁড়া মানেই তো পিঠাপুলি তৈরির অন্যতম উপকরণ। তবে দৈনন্দিন রূপচর্চায়ও এর কার্যকারিতা কম নয়। কারণ, চালের গুঁড়া এমন একটি উপকরণ, যা সব ধরনের ত্বকের জন্য উপকারী। রূপবিশেষজ্ঞ শারমীন কচি জানালেন, ত্বক পরিষ্কার করতে চালের গুঁড়া খুব কাজে দেয়। এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। তবে সব ধরনের চালের গুঁড়া যে ত্বকে ব্যবহার করা যাবে তা কিন্তু নয়। শুধু আতপ চাল ও কালিজিরা চালের গুঁড়া ভালো স্ক্রাবিংয়ের কাজ করে। 

১. বিভিন্ন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সেদ্ধ চাল প্রস্তুত করা হয়। যে কারণে ত্বকের যত্নে এই চালের গুঁড়া খুব......

সুখ পেতে বাদ দিন ৮ চিন্তা

সুখ পেতে বাদ দিন ৮ চিন্তা

অধিকাংশ নেতিবাচক অনুভূতি সৃষ্টি হয় অযৌক্তিক বা ভুল ধারণা থেকে। এ বিষয়ে চিকিৎসক ও মনোবিদেরা একমত। তাঁদের মতে, ভালো বা সুখী থাকার জন্য ইতিবাচক ও সঠিক চিন্তা করা প্রয়োজন। কিছু সাধারণ ভুল ধারণা আছে, যা মানুষের সুখের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। এমনই কিছু ভুল ধারণার কথা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের মনোবিদ অ্যালবার্ট এলিস।

আপনাকে সবাই পছন্দ করবে

অনেকেই মনে করেন, সবাই তাঁকে পছন্দ করবেন। কিন্তু বাস্তবে তা হয় না। খুব স্বাভাবিকভাবেই সবাই সবার পছন্দের পাত্র হন না। আর সবার পছন্দের পাত্র যে হতেই হবে, এমন ভাবনাও ভুল।

আপনি সবকিছুর যোগ্য

......

অসম্ভবকে সম্ভব করার ৫ উপায়

অসম্ভবকে সম্ভব করার ৫ উপায়

অফিসের বাঁধাধরা নিয়মের বেড়াজালে বন্দী হয়ে অনেকেই হাঁসফাঁস করেন। ছুটির দিনটা তাড়াতাড়ি চলে যায় বলে আফসোস থাকে অনেকের। প্রতি মাসের শেষে বেতন নিতে হয় বলে ইচ্ছার বিরুদ্ধেও কাজ করতে হয়। অর্থাৎ অফিসে কাজের জন্য কোনো লক্ষ্য থাকে না। চাকরির শুরুতে যতটা উৎসাহ দেখা যায়, বছর যেতে না যেতেই হতাশা বাড়তে থাকে। কিছুদিন করপোরেট অফিসে চাকরি করার পর অনেকেই বলেন, আর সম্ভব না। কারণ, করপোরেট অফিসের চাপ আর একঘেয়েমি পেয়ে বসে একসময়। তাই এ সময় নিজেকে উদ্বুদ্ধ রাখা জরুরি। অসম্ভবকে সম্ভব করতে পারলে সামনে এগিয়ে যাওয়া কঠিন কিছু নয়।

নিজেকে উদ্বুদ্ধ করার কয়েকটি পরামর্শ:

সকালে ব্যায়াম

......

ঘরের গাছের যত্ন চাই–ই চাই

ঘরের গাছের যত্ন চাই–ই চাই

অন্দরে রাখা গাছের নিয়মিত যত্ন নিতে হবে। মডেল: অবাক ও আইরিন। কৃতজ্ঞতা: রাহেলা খাতুন, ছবি: নকশা

ইট-পাথরের শহুরে বাড়িঘরে একটু সবুজের পরশ যেন প্রাণের সঞ্চার করে। তাই বাড়ির ভেতর এক টুকরো সবুজের আকাঙ্ক্ষা কমবেশি সবারই থাকে। এ জন্য ঘরের কোণে কিংবা বারান্দায় অনেকেই গড়ে তোলেন এক টুকরো সবুজ বাগান।

এই বর্ষাকালে ঘরের গাছগুলো যেমন সজীব থাকে, অন্যদিকে বেড়ে যায় মশার উপদ্রব। তাই এই সময়ে গাছের যত্ন আর সচেতনতা খুব বেশি প্রয়োজন। শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নিপা মোনালিসা জানালেন, ‘মশা স্বচ্ছ পানিতে জন্মায়। তাই এই মৌসুমে টবে কোনোভাবেই পানি......

তাই বলে এমন মাশুল দিতে হল পরকীয়ায়!

তাই বলে এমন মাশুল দিতে হল পরকীয়ায়!

পরকীয়া প্রেম। এরপর শারীরিক সম্পর্ক। হঠাৎ বিব্রতকর অবস্থায় পড়লেন যুবক! এরপর চিৎকার, অবশেষে ছাড়াতে এল পুলিশ!! ঘটনাটি দক্ষিণ আফ্রিকার জোহনেসবার্গের।

পুলিশ জোহনেসবার্গের ওই ফ্ল্যাটে এসে জানতে পারে, ২২ বছরের সল কোবোজার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত ছিলেন বছর ৩৪-এর সাশা গেমা। জানা গেছে, ৪২ বছরের স্বামী নেল কাজের সূত্রে বাইরে থাকার সুবিধা নিয়েই পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন সাশা। দু’জনকে প্রায়ই ফ্ল্যাটে আসতে দেখতে পাওয়া যেত বলে দাবি প্রতিবেশীদের।

এদিকে, শারীরিক সম্পর্কের সময় সাশার যৌনাঙ্গে আটকে যায় সল-এর পুরুষাঙ্গ। ডাক্তারি ভাষায় একে পেনিস ক্যাপটিভাস (Penis Captivus) বলা হয়।......

যৌনতায় অনীহা বাড়ছে!

যৌনতায় অনীহা বাড়ছে!

মানুষ মাত্রই যৌনাকাঙ্ক্ষা রয়েছে। তাই বলে সব মানুষই যে যৌনতায় প্রলুব্ধ হন, তা কিন্তু নয়। এ ক্ষেত্রে অনেকের নানা কারণে অনীহাও রয়েছে। যেমন সঙ্গী বা সঙ্গিনী থাকা সত্ত্বেও যুক্তরাজ্যে প্রতি পাঁচজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির মধ্যে একজনের যৌনতায় অনীহা। এই হার ক্রমে বেড়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য ইনডিপেনডেন্ট-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল সার্ভে অব সেক্সুয়াল অ্যাটিচুডস অ্যান্ড লাইফস্টাইলসের গবেষণায় এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যৌনতায় যাঁদের আগ্রহ বেশি, তাঁদের জীবনের প্রত্যাশা, জীবনমান......

সর্বাধিক পঠিত