করোনা পরীক্ষার ফল পেতে দেরি হওয়ায় এটিকে স্রেফ টাকার অপচয় বলেছেন বিল গেটস!

August 9, 2020, 8:55 AM, Hits: 447

করোনা পরীক্ষার ফল পেতে দেরি হওয়ায় এটিকে স্রেফ টাকার অপচয় বলেছেন বিল গেটস!

হ-বাংলা নিউজ, হলিউড থেকে: করোনা ভাইরাসের পরিক্ষার ফল পেতে যদি দেরি হয় তাহলে এই টেস্ট কোন ফল বয়ে আনবে না। এটি শুধু টাকার অপচয় ছাড়া আর কিছুই না। এই মুহুর্তে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের যেসব টেস্ট হচ্ছে, সেগুলোর বেশির ভাগেরই ফল আসতে অনেক দেরি হয়। আর তাই সেগুলোকেও ‘স্রেফ অপচয়’ বলে মন্তব্য করেছেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। তিনি মনে করেন, মানুষের কাছে তার টেস্টের ফল দ্রুত আসতে হবে, যাতে পজিটিভ হওয়া ব্যক্তি তাঁর চলাফেরার গতিপ্রকৃতি পাল্টাতে পারেন। ফলে সংক্রমিত ব্যাক্তির দ্বারা আর কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হবে না।আমেরিকার  সংবাদমাধ্যম সিএনবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব বলেন মাইক্রোসফটের সাবেক নির্বাহী কর্মকর্তা। বিল গেটস বলেন, তিনি মনে করেন একটা মানুষকে ৪৮ ঘণ্টা পর তাঁর করোনা পরীক্ষার ফলাফল দেওয়ার কোনো মানে হয় না। এভাবে টেস্ট করানোটা একেবারে অপচয় ছাড়া কিছু না। আমরা যেসব টেস্ট করছি এগুলোর বেশির ভাগই আসলে অপচয়। যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণের শুরুতে টেস্টের ফলাফল আসতে বেশ দেরি হওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়। এখন দেশটিতে যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে, সেখানে এই দেরিতে ফল আসা একটা কারণ বলে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা মনে করেন। বিল গেটসের এ অভিযোগ মেনে নিয়েছেন দেশটির ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিসেসের সহকারী মন্ত্রী ব্রেত জিওয়া। তিনি বলেন, ‘আমরা যদি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফলাফল না দিতে পারি, তবে কখনোই তা ভালো কোনো বিষয় হতে পারে না। এটা করা গেলে নিশ্চয়ই ভালো হবে। তবে আমাদের সেই অবস্থান নেই। সেই চেষ্টা আমরা করে যাচ্ছি। জিওয়া বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে অর্ধেক করোনা টেস্ট হচ্ছে বড় বড় বাণিজ্যিক ল্যাবে। এগুলো থেকে টেস্ট রেজাল্ট আসতে গড়ে প্রায় ৪/৫ দিন লেগে যায়। আমাদের এই অবস্থার পরিবর্তন করা একান্ত জরুরী। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ