আমেরিকার সুপ্রিমকার্টের অপ্রত্যাশিত রায়, বড় ধরনের ধাক্কা খেলেন ট্রাম্প!

June 18, 2020, 5:37 PM, Hits: 1443

আমেরিকার সুপ্রিমকার্টের অপ্রত্যাশিত রায়, বড় ধরনের ধাক্কা খেলেন ট্রাম্প!

হ-বাংলা নিউজ, হলিউড থেকে: আমেরিকার সুপ্রিমকোর্টের তরফে আজ একটি যুগান্তকারী রায় দেওয়া হয়েছে।অভিবাসী সুরক্ষা (DACA) আইন বাতিলের কার্যক্রম স্থগিত ঘোষনা করা হয়েছে।২০১২ সালে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার এক নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে জারি কৃত Deferred Action for Children Arrivals, DACA আইনটি মুলত বাবা মায়ের হাত ধরে অবৈধভাবে আমেরিকায় পাড়ি জমানো লক্ষ লক্ষ তরুন তরুনীদের যাতে ঐদেশে ফিরে যেতে না হয় তার সুরক্ষা আইন। কিন্তু অভিবাসনের ঘোরতর বিরোধী বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসের দিকে জনপ্রিয় এই আইনটি বাতিল করে দেয়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে বেশ কয়েকটি স্টেট প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নেওয়া সিদ্ধান্তকে চ্যালেন্জ করে আদালতে মামলা টুকে দেয়। এই মামলা গুলির পরিপ্রক্ষিতেই আজ এই রায় ঘোষনা করা হয়। ট্রাম্প তো বটেই, তার সমর্থক রক্ষনশীল রিপাবলিকানরাও ধরেই নিয়েছিল যে রায়টা তাদের পক্ষেই যাবে। এত আত্মবিশ্বাসের মুল কারন হল প্রেসিডন্ট ট্রাম্পের নিয়োগ দেওয়া দুই রক্ষনশীল বিচারক সহ সুপ্রিমকার্ট এখন ৫-৪ অনুপাতে ডানপন্থীদেরই পক্ষে।কিন্তু গনেশ উল্টে গেল যখন খোদ প্রধান বিচারপতি জন রবার্টস তার সুবিবেচনা প্রসুত চেনা রুপ পাল্টালেন। তিনি মত দিলেন যে (Deferred Action for Children, DACA) বাতিলের যে পদক্ষেপ হোমল্যান্ড সিকিউরিটি গ্রহন করেছে তাতে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরন করা হয়নি।প্রধান বিচারপতি হয়ত অনুধাবন করেছেন যে DACA আইনের সুযোগ নেওয়া প্রায় ৭লক্ষ তথাকথিত “Dreamers” একজন ব্যক্তির রাজনৈতিক অভিলাষের কাছে পরাজিত হতে পারে না। এত গুলি কোমলমতি প্রান বহুবছর ধরে এই আমেরিকাকে ঘিরে যে স্বপ্ন দেখেছে তা দুমরে মুচরে দেবার অধিকার কাউকে একক ভাবে দেওয়া হয়নি। তাই তিনি তার চিরাচরিত অবস্থান বদলে এই ঐতিহাসিক রায়টি দিয়েছেন। এর ফলে আপাতত লক্ষ লক্ষ যে অভিবাসীগন  অবৈধ ভাবে তাদের বাবা মায়ের সঙ্গে শৈশবে এই আমেরিকাতে পাড়ি জমিয়েছিল তাদের দম নেওয়া একটু ফুসরত হলো।ধারনা করা হচ্ছে নভেম্বরের প্রেসিডন্ট নির্বাচনের আগে ট্রাম্প এব্যাপারে আর কোন পদক্ষেপ নেওয়ার সময় পাবেন না। তাই DACA আইনের সুযোগ নেওয়া বৃহৎ এই জনগোষ্টির আপাতত নভেম্বরের নির্বাচনের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে। 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ