নিউইয়র্কে প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বির্তকিত কালো আইনে আর কত বিচারিক হত্যা?

November 5, 2019, 10:25 AM, Hits: 108

নিউইয়র্কে প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বির্তকিত কালো আইনে আর কত বিচারিক হত্যা?

হ-বাংলা নিউজ :  মানবতাবিরোধী অপরাধ অভিযোগের নাম করে বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামির আমির বিশ্ববরণ্য আলেম মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, সেত্রেæটারী জেনারেল জাতীয় নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ কামারুজ্জামান, মীর কাসেম আলী, আব্দুল কাদের মোল্লাকে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়াও সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল এ টি এম আজহারুল ইসলামকে বিচারিক হত্যার ষড়যন্ত্র করছে সরকার। জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাসহ গোটা বিশ্বে বির্তকিত কালো আইনে বাংলাদেশে আর কত বিচারিক হত্যা ? ৩ নভেম্বর রোববার স্থানীয় সময় রাত ৭টায় ব্রæকলিনের এভিনিউ সি প্লাজায় এ টি এম আজহারুল ইসলামের ফাঁসির রায় বহাল ও ভোলায় নবীপ্রেমিক মুসল্লিদের হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিলে বক্তারা সরকারের নিকট এ প্রশ্ন রাখেন।

বাংলাদেশী আমেরিকার প্রগ্রেসিভ ফোরাম (বাপফ) এর আয়োজনে প্রতিবাদ সভায় বক্তারা আরো বলেন, সরকার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে আদর্শিক ও রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়ে হত্যা ও ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। আজহারুল ইসলামের মতো বর্ষিয়ান ইসলামি নেতাকে আর্ন্তজাতিকভাবে স্বীকৃত বির্তকিত ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে হত্যা করার চেষ্টা করছে। কিন্তু সচেতন জনতা সরকারের সে ষড়যন্ত্রমূলক রায় কখনোই মেনে নেবে না। সরকারের এ নিষ্ঠুর আচরণে ইতিহাসের কাঠগড়ায় একদিন দাঁড়াতে হবে।

বক্তারা সরকারকে হুঁশিয়ার করে বলেন, মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, মোহাম্মদ কামারুজ্জামান, মীর কাসেম আলী, আব্দুল কাদের মোল্লার মতো হাজারো নেতাকে হত্যা করে বাংলাদেশ থেকে ইসলামকে মুছে ফেলার আওয়ামী স্বপ্ন কোনো দিনই পূরণ হবে না। 

বক্তারা আরো বলেন, ইসলামী আন্দোলনের নেতাদের নিযার্তন আর হত্যার প্রতিবাদে অনেকবার হোয়াইট হাউজ, জাতিসংঘের সামনে আমরা সমাবেশ করেছে, গায়েবানা জানাযা পড়েছি। আমরা দেশে হত্যা, গুম আর খুনের রাজননীতি চাই না। তারা বলেন, জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাসহ গোটা বিশ্বে বির্তকিত কালো আইনে বাংলাদেশে আর কত বিচারিক হত্যা ?  বক্তারা সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক হত্যা ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য উদাত্ত আহŸান জানান। তারা ভোলায় নবীপ্রেমিক সাধারণ মুসল্লীদের হত্যা ও হাজার হাজার মানুষকে আহত করার তীব্র নিন্দা জানান এবং অপধারীদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন প্রফেসিভ ফোরামের সভাপতি মুকিযোদ্ধা প্রফেসর নূরুল ইসলাম, ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, শিক্ষাবিদ আবুসামীহাহ সিরাজুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা হেলাল উদ্দিন, আবুল হাশেম শাহাদাত, ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান, মোতাসিম বিল্লাহ, যুক্তরাষ্ট্র জাগপার সভাপতি এএইচ এম রহমত উল্যাহ ভূইয়া, মাওলানা সাফায়েত হোসাইন, মাওলানা সিহাব উদ্দিন প্রমুখ। 


 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ