নিউইয়র্কে বাফা’র ফান্ডরেজিং অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের সহযোগিতা কামনা

October 20, 2019, 10:23 AM, Hits: 123

নিউইয়র্কে বাফা’র ফান্ডরেজিং অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের সহযোগিতা কামনা

সালাহউদ্দিন আহমেদ, হ-বাংলা নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে :  নিউইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশীদের অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন বাংলাদেশ একাডেমী অব ফাইন আর্টস - বাফা’র ফান্ডরেজিং ও সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৮ অক্টোবর শুক্রবার সন্ধ্যায় বাঙালী অধ্যুষিত ব্রঙ্কসের গোল্ডেন প্যালেসে এ ফান্ডরেজিং অনুষ্ঠিত হয়। ফান্ডরেজিংয়ে ছিল বর্ণিল সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।

বাফা ও ব্রঙ্কস বাংলাদেশ উইমেন’স এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ফরিদা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন অয়েল কেয়ার হেলথ প্ল্যানের সিনিয়ার ম্যানেজার সালেহ আহমেদ, বিশিষ্ট লেখক-সাংবাদিক হাসান ফেরদৌস, বাফার ড্যান্স ডাইরেক্টর অনুপ কুমার দাশ, মুক্তিযোদ্ধা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী, বাংলাদেশী-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের সভাপতি মোহাম্মদ এন মজুমদার, আমেরিকান-বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন ইনক’র সভাপতি আব্দুস শহিদ এবং সাপ্তাহিক জনতার কন্ঠ’র সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, ভোরের কাগজের যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি শামিম আহমেদ, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দিন আহমেদ সোহাগ, খলিল বিরিয়ানী হাউজের কর্ণধার মোঃ খলিলুর রহমান, স্টারলিং ফার্মেসীর পরিচালক মোহাম্মদ আলী, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট সাখাওয়াত আলী, আহসান হাবিব, এডভোকেট হেমায়েত উদ্দিন তালুকদার, এ ইসলাম মামুন, মোতাশিম বিল্লাহ হোসেন তুষার প্রমুখ। সমালনায় ছিলেন সাহিত্য একাডেমির পরিচালক মোর্শারফ হোসেন।

অনুষ্ঠানে রাজনীতিক, ব্যবসায়ী, কবি, সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিক কর্মী, সাংবাদিক সহ নানা শ্রেণী পেশার বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী উপস্থিত ছিলেন।

বাফা শিল্পীদের মনোমুগ্ধকর নৃত্যানুষ্ঠান ছাড়াও জনপ্রিয় শিল্পী ড. তনিমা হামিদ ও আলী মাহমুদের অসাধারণ পরিবেশনা দর্শকরা দারুণভাবে উপভোগ করেন। বর্ণিল এ অনুষ্ঠান উপভোগ করতে দুর দুরান্ত থেকে ছুটে আসেন নতুন প্রজন্মসহ বিপুল সংখ্যক সংস্কৃতি প্রেমি প্রবাসী।

বাফা’র নৃত্যানুষ্ঠান পরিকল্পনা ও পরিচালনায় ছিলেন অনুপ কুমার দাশ। পোষাক পরিকল্পনায় ছিলেন অনুপ কুমার দাশ ও ফরিদা ইয়াসমিন। তবলায় ছিলেন তপন মোদক, যন্ত্র সঙ্গীতে শহিদ উদ্দিন। ব্যবস্থাপনায় ছিলেন শামীম আরা বেগম, ফারজানা ইয়াসমিন, শিউলি হক প্রমুখ। মারজিয়া স্মৃতি বাফা’র সংক্ষিপ্ত কর্মকান্ড তুলে ধরেন।

বক্তারা বাফার বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশী নতুন প্রজন্মের মাঝে বাঙালী সংস্কৃতির বিকাশ সাধনে বাফা অনন্য ভূমিকা রেখে চলেছে। এর মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের বাংলাভাষা ও সংস্কৃতি চর্চা বিকশিত হচ্ছে।

বক্তারা বলেন, প্রবাসে নতুন প্রজন্মকে বাঙালী সংস্কৃতি চর্চায় উদ্ভূদ্ধ না করা হলে বাঙালী সংস্কৃতি একদিন হারিয়ে যাবে। প্রবাস প্রজন্মের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে বাফাকে এগিয়ে নেয়ার জন্য সকলকে সহযোগিতা করার আহবান জানান তারা। এজন্য যার যার অবস্থান থেকে আর্থিক সহযোগিতা সহ যথাযথ ভূমিকা রাখার জন্যও বিশেষভাবে অনুরোধ জানান হয়। 

বাফার প্রেসিডেন্ট ফরিদা ইয়াসমিন সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রবাসে জন্ম নেয়া ও বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মকে বাংলা শিল্প-সংস্কৃতিমনা করে গড়ে তুলতে বাফা নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বাফাকে আর্থিক সহ সার্বিকভাবে সহযোগিতা করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

উল্লেখ্য, বাফার বৃহত্তর পরিসরে নতুন অফিস নেয়ার পর এ ফান্ডরেজিং অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হল। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ