ভারতের বিদায়, বলিউড কী বলল?

July 11, 2019, 1:46 PM, Hits: 336

ভারতের বিদায়, বলিউড কী বলল?

হ-বাংলা নিউজ : ভারতের জন্য গতকাল বুধবারের রাত ছিল ভয়ংকর দুঃস্বপ্ন। গত বছরের মতো এবারও ভারতকে ‘বিদায়’ বলতে হলো সেমিফাইনালেই। ছুঁয়ে দেখা হলো না স্বপ্নের বিশ্বকাপ ট্রফি। অধিনায়ক বিরাট কোহলি এই স্বপ্নভঙ্গের জন্য দুষছেন ৪৫ মিনিটের বাজে ক্রিকেটকে। যদিও অকপটে স্বীকার করেছেন, নিউজিল্যান্ডই এই জয়ের যোগ্য। ক্রিকেট নিয়ে এই আলাপের কারণ, বলিউড আর ভারতের ক্রিকেটকে কখনো বিচ্ছিন্ন করা যায়নি, যায় না। শুরু থেকে ক্রিকেট আর বলিউড যেন পাশাপাশি পথ হেঁটেছে। মাঝেমধ্যে পথ পিছলে পড়তে গিয়ে একজন আরেকজনের হাত ধরেছে।

সেই পথচলায় তাদের চোখাচোখি হয়েছে, হয়েছে প্রেম। দিস্তার পর দিস্তা লেখা হয়েছে ক্রিকেট আর বলিউডের ভালোবাসা আর বিরহকাব্য। তাই ক্রিকেট ছাড়া বলিউড আর বলিউড ছাড়া ক্রিকেট যেন রংহীন। ক্রিকেটারের ঘরে জন্ম নিয়েছে বলিউড তারকা (যেমন অধিনায়ক মনসুর আলী খান পতৌদির পুত্র বলিউড তারকা সাইফ আলী খান)। আবার বলিউড তারকার প্রেমে পড়েছেন ২২ গজের কোনো এক সুদর্শন কাব্যলেখক। আবার ধরুন ‘এইটি থ্রি’ ছবিতে রণবীর সিংকে বিচ্ছিন্ন করা যাচ্ছে না বিশ্বকাপ ক্রিকেটজয়ী কিংবদন্তি ক্রিকেটার কপিল দেব থেকে।

স্বপ্ন ভেঙেছে ভারতের, স্বপ্ন ভেঙেছে কোহলির, স্বপ্ন ভেঙেছে বলিউডের, স্বপ্ন ভেঙেছে আনুশকা শর্মার। বলিউড তারকা আনুশকারও স্বপ্ন ছিল গ্যালারিতে বসে স্বামী কোহলির হাতে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ট্রফি দেখার সেই গৌরবময় রোমাঞ্চকর মুহূর্তের সাক্ষী হওয়ার। সেই উদ্দেশ্যে ইংল্যান্ডে উড়ালও দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এবারের মতো তা আর হলো না। সেই ‘হলো না’র হতাশা যেমন পোড়াচ্ছে ১৭টি দেশ, ২টি মহাদেশসহ ১৪ হাজার মাইল পথ পাড়ি দিয়ে গ্যালারিতে বসে ভারতের খেলা দেখতে আসা সেই পরিবারকে, পোড়াচ্ছে বলিউডকেও।

৯২ রানে ৬ উইকেট পড়ার পর এম এস ধোনি আর রবীন্দ্র জাজেদার ১১৬ রানের জুটি ক্রমেই ধূসর করে দিয়েছিল নিউজিল্যান্ডের স্বপ্নের ফাইনাল। কিন্তু ধোনির ওই রানআউটটাই যেন বদলে দেয় সব সমীকরণ। আশার সব বাতি একে একে নিভে যায়। হৃদয়ভাঙা সেই ম্যাচ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বলিউড তারকারা যা বললেন, তা নিয়ে এ প্রতিবেদন।

বলিউড তারকা অনুপম খের, আমির খান, করণ জোহর, আয়ুষ্মান খুরানা, রিতেশ দেশমুখ, ঋষি কাপুর, বরুণ ধাওয়ান, অর্জুন রামপাল, রণদীপ হুদা, সোনাক্ষী সিনহা, হুমা কোরেশি, বোমান ইরানীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিউইদের বিরুদ্ধে ভারতের লড়াইয়ের প্রশংসা করেছেন। ‘ভারত ভালো খেলেছে’ বলেছেন সবাই। তবে তার মধ্যে উঠে এসেছে কিছু হতাশাও।

আমির খান

আমির খান টুইটারে লিখেছেন, ‘বিরাটের দুর্ভাগ্য। আসলে দিনটা আমাদের ছিল না। আমার জন্য তো ভারত যখন প্রথম অবস্থানে থেকে সেমিতে উঠেছে, তখনই বিশ্বকাপ জিতেছে। আমরা খেলেছি, টুর্নামেন্টজুড়েই আমরা খেলেছি। প্রথম দিনের বৃষ্টি সব ভেস্তে দিল। তাহলে হয়তো ফলাফল ভিন্ন হতো। খুব ভালো খেলেছ ভারত, তোমাকে নিয়ে গর্বিত।’

অনুপম খের 

অনুপম খের ভারতীর দলের একটি ছবি শেয়ার করে তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন ভালো খেলার জন্য। তাঁর মতে, এই ভারতীয় দল সব ভারতীয় জাতিকে এক করে তাদের ভেতর অভিন্ন সত্তার জন্ম দিয়েছে। তিনি টুইট করেছেন, ‘যে প্রচেষ্টা দেখিয়েছ, সে জন্য তোমাদের ধন্যবাদ। তোমরাই আমাদের একসঙ্গে করেছ। জাতীয় পতাকার সেই তিন রঙের মতো। তোমরা সব সময় আমাদের হিরো, আর হিরো হয়েই থাকবে। তোমাদের জন্য ভালোবাসা।’

করণ জোহর 

বলিউডের জনপ্রিয় প্রযোজক ও পরিচালক করণ জোহর আবার গুরুত্ব দিচ্ছেন এই টুর্নামেন্টে ভারত দলের যাত্রার ওপর, গন্তব্যের ওপর নয়। তিনি লিখেছেন, ‘আমার কথা হয়তো বুড়োদের মতো শোনাবে। কিন্তু আমি বলব, তারা বীরের মতোই খেলেছে। তাদের এই অবিশ্বাস্য যাত্রাকে আমাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে। গন্তব্য না হয় এবারের মতো ভুলেই থাকলাম।’

আয়ুষ্মান খুরানা

আয়ুষ্মান খুরানাও বলছেন যে ভালো খেলেছে ভারত। আর সব দোষ চাপাচ্ছেন খারাপ দিনের ওপর। তিনি লিখেছেন, ‘ভারতীয় দল, তোমাদের নিয়ে গর্বিত। আজ অফিসে এত খারাপ একটা দিন গেল। এ রকম খারাপ দিন খুব কমই আসে। যা হোক, মাথা উঁচু করো। ভালো খেলেছ।’

রিতেশ দেশমুখ 

টুইটার তুলে রীতেশ তো রীতিমতো ধোনি আর জাদেজার প্রশংসা করলেন। কিউইদের অভিনন্দন জানাতেও ভোলেননি এ অভিনেতা। তিনি লিখেছেন, ‘এম এস ধোনি, আপনি একজন সত্যিকারের কিংবদন্তি। জাদেজাও একটা ব্রিলিয়ান্ট গেম খেলেছে। আমরা আজ জিততে পারিনি বলে আমি দুঃখী। তবে আমি আমার দলকে নিয়ে গর্বিত। নিউজিল্যান্ডকে অভিনন্দন।’

ঋষি কাপুর

ঋষি কাপুর ভারত ও নিউজিল্যান্ড দুই দলকেই ভালো খেলার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। নিউইয়র্কের হাসপাতাল থেকে তিনি লিখেছেন, ‘ভালো খেলেছে নিউজিল্যান্ড, ভালো খেলেছে ভারত। আন্ডারডগরাই করে দেখাল।’

সোনাক্ষী সিনহা

বলিউড তারকা সোনাক্ষী সিনহাও মনে করেন ভালো খেলেছে ভারত দল। বাংলাদেশি ভক্তদের ‘হারি জিতি বাংলাদেশ’–এর মতো তিনিও লিখেছেন, ‘হারি জিতি ভারত’। সোনাক্ষী লিখেছেন, ‘ভারতীয় ক্রিকেট দলের জন্য আমার ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা সব সময় ছিল, আছে, থাকবে। হারি বা জিতি—ভারতীয় দলের সঙ্গে আছি।’

রণদীপ হুদা

যখন ধোনিকে একটি চমৎকার থ্রোতে ড্রেসিংরুমের পথ দেখালেন নিউজিল্যান্ডের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মার্টিন গাপটিল, তখনই যেন আশার শেষ মোমবাতিটা নিভে যেতে দেখেছিলেন বলিউড তারকা রণদীপ হুদা। তাই খেলা শেষ হওয়ার আগেই টুইটারে লিখেছেন ফলাফলের প্রতিক্রিয়া, ‘ধোনির কপালটাই খারাপ, সেই সঙ্গে ভারত দলের। টুর্নামেন্টজুড়েই খুবই উদ্দীপ্ত খেলা খেলেছ তোমরা। যদিও ধোনির এই রানআউট আমার হৃদয় ভেঙে দিয়েছে, আমাদের স্বপ্ন ভেঙে দিল।’ 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ