ফিলাডেলফিয়ায় মুনা কনভেনশন ৫-৭ জুলাই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন

July 4, 2019, 9:02 AM, Hits: 102

ফিলাডেলফিয়ায় মুনা কনভেনশন ৫-৭ জুলাই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন

সালাহউদ্দিন আহমেদ, হ-বাংলা নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : ‘ইসলাম : দ্যা ব্যালেন্সড ওয়ে অব লাইফ’ এই প্রতিপাদ্য সামনে নিয়ে এবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে মুসলিম উম্মাহ অব নর্থ আমেরিকা (মুনা) কনভেনশন-২০১৯। গত বছরের মতো এবছরও যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়া অঙ্গরাজ্যের বিখ্যাত ‘পেনসিলভেনিয়া কনভেনশন সেন্টারে’ আগামী ৫-৭ জুলাই যথাক্রমে শুক্র, শনি ও রোববার তিনদিনব্যাপী এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এটি হবে ষষ্ঠ কনভেনশন। মুনা কনভেনশনের উল্লেখযোগ্য কর্মকান্ডের মধ্যে থাকবে সেমিনার, ইয়্যুথ কনভেনশন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রভৃতি। যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও বিদেশী ইসলামিক স্কলারগণ বক্তব্য রাখবেন। নতুন প্রজন্ম সহ মুসলিম কমিউনিটিকে ইসলামের আলোকে দীনের উপর চলার মধ্য দিয়ে সুন্দর সমাজ প্রতিষ্ঠাই কনভেনশনের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। আয়োজকদের প্রত্যাশা এবারের সম্মেলনের যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী ১৫ হাজার মুসলিম নর-নারী যোগ দেবেন। মুনা কনভেনশনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে সংশ্লিস্টরা জানিয়েছেন। গত বছরের মতো এবারো কনভেনশনের কনভেনরের দায়িত্ব পালন করছেন সিপিএ আরমান চৌধুরী।

মুনা কনভেনশনের কর্মকর্তারা জানান, কনভেনশনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ৫ জুলাই শুক্রবার বাদ জুম্মা থেকে কনভেনশনের আনুষ্ঠানিতা শুরু হবে। ৭ জুলাই রোববার জোহর নামাজের মধ্য দিয়ে কনভেনশনের সমাপ্তি ঘটবে। এবারের কনভেনশনে ১৫ হাজার নর-নারীর সমাবেশ ঘটবে বলে আয়োজকরা আশা প্রকাশ করছেন। 

শুক্রবার সকালে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস, ব্রকলীন, ওজনপার্ক, জ্যামাইকা প্রভৃতি এলাকা থেকে একাধিক বাসযোগে অংশগ্রহণকারীরা ফিলাফেলডিয়া যাবেন এবং সেখানে জুম্মার নামাজ আদায়ের পর কনভেনশনের কর্মসূচী শুরু হবে। এছাড়াও কার যোগেও অনেকে কনভেনশনে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে।

মুনা নেতৃবৃন্দ বলেন, এবারের কনভেনশনে ‘ইন্টারফেইথ’ বিষয়ক অনুষ্ঠান প্রাধান্য থাকবে। মুনা যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক একটি সামাজিক সংগঠন। মুনা’র কোন রাজনৈতিক মতাদর্শ নয়, ইসলামের আলোকে জীবন-যাপনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী মুসলিমদের বিশেষ করে নতুন প্রজন্ম নিয়ে মুনা কাজ করছে। মুনা গত বছরও একই কনভেনশন সেন্টারে বিশাল কনভেশন আয়োজন করে। এই কনভেনশন মুসলিম জীবনে বিশেষ করে বাংলাদেশী-আমেরিকান পরিবারের উপর গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

সম্মেলনে মূল প্রতিপাদ্য বিষয়ক আলোচনা, সেমিনার ছাড়াও তরুণ ছেলে-মেয়েদের জন্য থাকবে আলাদা ‘ইয়ুথ কনভেনশন”। ভারসাম্যপূর্ণ জীবনের বিভিন্ন দিক ও বিভাগের উপর প্যারালাল প্রোগ্রাম। আরো থাকবে ‘মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান’ বিভিন্ন ইসলামী ও অন্যান্য সামগ্রীর দোকান নিয়ে বিশাল বাজার। ছোট ছেলে-মেয়েদের জন্য শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান ‘লার্ন এন্ড ফান’। বিভিন্ন ‘খেলাধুলা-রাইড’ এর ব্যবস্থা। এছাড়া ফিলাডেলফিয়া ভ্রমণকারীদের জন্য থাকবে আমেরিকার স্বাধীনতা আন্দোলনের স্মৃতিবহুল ‘ভাতৃপ্রতিম ভালোবাসার শহর’ নানা দর্শনীয় স্থান পরিভ্রমন ও পরিদর্শনের সুযোগ। 

মুনা ও কনভেনশনের অন্যান্য দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন: ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট ইমাম দেলোয়ার হোসাইন, ভাইস প্রেসিডেন্ট নূরুজ্জামান, মাওলানা এবিএম ফয়জুল্লাহ ও ডা. সাঈদুর রহমান চৌধুরী, কনভেনশনের চেয়ারম্যারম্যান আবু আহমেদ নূরুজ্জামান, ন্যাশনাল এক্সিকিউভিট ডাইরেক্টর হারুন অর রশীদ সহ ডা. আতাউল ওসমানী, মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল আরীফ, মাহবুবুর রহমান, রশীদ আহমদ প্রমুখ।  

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ