নিউজার্সীর রাটগারস ইউনিভার্সিটিতে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত।

April 27, 2019, 1:04 PM, Hits: 507

নিউজার্সীর রাটগারস ইউনিভার্সিটিতে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত।

আকবর হোসাইন , হ-বাংলা নিউজ,  নিউজার্সী থেকে : যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সীর রাটগারস ইউনিভার্সিটিতে বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের সংগঠন বাংলাদেশ স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন (বিএসএ)অব রাটগারস ইউনিভার্সিটি  গত ২০ এপ্রিল, শনিবার আয়োজন করেছিল বাংলা বর্ষবরণ উৎসবের । এ উৎসবের মূল উদ্দেশ্য ছিল চিরায়ত বাঙালি সংস্কৃতির উৎসবমুখর দিকগুলো যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহনকারী এবং বেড়ে উঠা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন দেশের ছাত্রছাত্রীদের কাছে উপস্থাপন করা। রাটগারস ইউনিভার্সিটির ডগলাস ষ্টুডেন্ট সেন্টারের  ট্রাইস হলে অনুষ্ঠিত জমকালো এই আয়োজনে ট্রাইস হল রুম ছিল কানায় কানায় পরিপূর্ন। যুক্তরাষ্ট্রের ভিন্ন পরিবেশে বেড়ে উঠা বাঙ্গালী ছাত্রছাত্রীদের মনোমুগ্ধকর এই আয়োজন ছিল অভাবনীয়।উপস্থিত দর্শকরা মন ভরে তাদের এই আয়োজন উপভোগ করেন।

প্রায় তিন শতাধিক দর্শককে সাথে নিয়ে নিউজার্সীর রাটগারস ইউনিভার্সিটিতে অন্যান্যবারের মতো উদযাপিত এই বর্ষবরণ উৎসব শুরু হয় বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতের প্রতি দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের মাধ্যমে। পশ্চিম বঙ্গের ছাত্রছাত্রীরা এই নববর্ষের সাথে সম্পৃক্ত থাকায় ভারতের জাতীয় সংগীত এবং যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের পর ‘এসো হে বৈশাখ’ গানটি পরিবেশন করে স্বাগত জানানো হয় বাংলা নববর্ষকে ।রাটগারস ইউনিভার্সিটির দুই ডায়নামিক ডুয়েল অনিক এবং ফারহানের উপস্থাপনা ছিল খুবই প্রানবন্ত। ইউনিভার্সিটি ষ্টুডেন্ঠ এসোসিয়েশনের প্রসিডেন্ট মাহমুদ হক মিমের অনুষ্ঠানে উপস্থিত দর্শকদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু করেন। 

ইসা দেউলের কোরিয়াগ্রাফিতে বাংলা গানের সাথে নৃত্য পরিবেশনায় অনুষ্ঠানস্থল আরও প্রানবন্ত  হয় উঠে। এনজেআইটির স্টুডেন্টদের প্যারেডি গানের সাথে নৃত্য পরিবেশনা ছিল সবছেয়ে আকর্ষনীয়।এরপর ইলা দেব এবং সোহাম পরপর কয়েকটি বাংলা গান পরিবেশন করেন।আবির,মিম, ডায়ান এবং দেবের "নিটল পায়ে রিনিঝিনি" গানটির সাথে হল ভর্তি সবাইকে সূর মিলাতে দেখা যায়।তাদের সংগীতের সাথে গীটারে ছিলেন ফারহান শহীদ এবং কাজুনে ছিলেন অনিক। 

অনুষ্ঠানের সবছেয়ে আকর্ষনীয় অংশ ছিল সম্মিলিত নৃত্য পরিবেশনা। "যে জন প্রেমের ভাব জানেনা" গানটির সাথে সম্মিলিত নৃত্য ছিল কোরিওগ্রাফার ইশা মন্ডলের এক অনবদ্য সৃষ্টি। 

রাটগারস ইউনিভার্সিটি ষ্টুডেন্ড এসোসিয়েশনের সভাপতি মাহমুদা হক মিম এবং সাধারন সম্পাদক আমান্দা হক বলেন নববর্ষের এই অনুষ্ঠানটি ছিল ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রছাত্রীদের জন্য সর্বশেষ অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের জন্য নতুন কমিটি ঘোষনা করা হয়। তারা বলেন পূর্ববতী কমিটিতে ৭ জন সদস্য ইউনিভার্সিটি থেকে তাদের ৪ বছরের পড়াশোনা সম্পন্ন করায় তারা কমিটি থেকে বিদায় দেয়া হয় এবং ফেয়ার ওয়েল দেয়ার পাশাপাশি রাটগারস ইউনিভার্সিটি ষ্টুডেন্ড এসোসিয়েশনকে একটি সুন্দর সাংগাঠনিক রূপ দেয়ার জন্য বর্তমান কমিটির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানানো হয়।

সবশেষে সাজ এবং সাকসির পরিচালনায় একটি নাটিকা পরিবেশন করা হয়।অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি আগামী অনুষ্ঠানগুলোতে সকলকে উপস্থিত থাকার জন্য সাদর আমন্ত্রন জানানো হয়।

  

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ