বাংলাদেশ উন্নয়ন মেলা’য় বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাকাব্যে পরিণত হয়েছে: জাতিসংঘ আন্ডার সেক্রেটারি

November 15, 2018, 4:29 AM, Hits: 219

বাংলাদেশ উন্নয়ন মেলা’য় বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাকাব্যে পরিণত হয়েছে: জাতিসংঘ আন্ডার সেক্রেটারি

তৈয়বুর রহমান টনি, হ-বাংলা নিউজ, নিউইর্য়ক থেকে  : গত এক দশকে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়ন এবং সরকারের অর্জনসমূহ তুলে ধরার প্রয়াসে দেশে-বিদেশে চলমান উন্নয়ন মেলার সঙ্গে মিল রেখে‘বাংলাদেশ উন্নয়ন মেলা ২০১৮’ অনুষ্ঠিত হয়েছে।  জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন ও নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের যৌথ উদ্যোগে নিউইয়র্কে সম্পন্ন হয়ে গেলো বাংলাদেশ উন্নয়ন মেলা।

কনস্যুলেট জেনারেল মিলনায়তনে বিভিন্ন স্তরের প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশ নেন। এতে কনস্যুলেট প্রাঙ্গণে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। বিপুল দর্শক সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয় এই উন্নয়ন প্রদর্শণ কর্মসূচি।

জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন ও নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের যৌথ উদ্যোগে শুক্রবার কনস্যুলেট জেনারেল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হল ‘বাংলাদেশ উন্নয়ন মেলা’।

স্থানীয় প্রবাসী বাঙালিদের ব্যাপক উপস্থিতির পাশাপাশি এ মেলায় বিদেশী অতিথিদের উপস্থিতিও ছিল লক্ষনীয়। সমগ্র অনুষ্ঠানের উপস্থাপনায় ছিলেন কাউন্সিলার সানজিতা হক। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া সত্ত্বেও জাতিসংঘে বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক, উন্নয়ন-সহযোগী সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তা, বিভিন্ন দেশের কন্সাল জেনারেল ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার প্রতিনিধিত্বকারিরা এসেছিলেন উন্নয়ন মেলায়। ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা এবং প্রবাস-প্রজন্মের সদস্যরাও।

আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল এবং স্বল্পোন্নত, ভূ-বেষ্টিত স্বল্পোন্নত ও উন্নয়নশীল ক্ষুদ্র দ্বীপ রাষ্ট্রসমূহের দায়িত্বে নিযুক্ত উচ্চ প্রতিনিধি মিজ্ ফেকিতামোইলোয়া কাটোয়া উতোইকামানু, বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউএনডিপি’র হিউম্যান ডেভোলপমেন্ট রিপোর্ট অফিসের পরিচালক ড. সেলিম জাহান এবং নিউইয়র্কস্থ ভারতের কনসাল জেনারেল অ্যাম্বাসেডর সন্দীপ চক্রবর্তী।

এছাড়া অতিথি ছিলেন জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভোলপমেন্ট পলিসি’র সিনিয়র ইকোনমিক অফিসার ম্যাথিয়াস ব্রুকনার, ইউনিসেফের হিউম্যানিট্যারিয়েন ফিল্ড সার্পোট এর প্রধান মিজ্ সারা র্বডাস-এড্ডি, জাতিসংঘের ক্যাপিটাল ডেভোলপমেন্ট ফান্ডের প্রোগ্রাম ম্যানেজার জেফার ম্যাকানো, ইউএস-বাংলাদেশ গ্লোবাল চেম্বার অব কমার্স এর চেয়াম্যান আজিজ আহমেদ ও সিনিয়র অ্যডভাইজর স্যাভিও চ্যান, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুদ্দিন আজাদ, নিউইয়র্কের কুইন্স বোরো প্রেসিডেন্ট মেডিন্ডা কার্স্ট এর কমিউনিটি সমন্বয়ক মোহামেদ হ্যাক এবং নিউইয়র্ক মেয়র অফিসের কমিউনিটি অ্যাসোসিয়েটস্ মিজ্ তাহিতুন মারিয়াম।

প্রায় এক মাস অক্লান্ত পরিশ্রম করে বাংলাদেশ মিশন ও বাংলাদেশ কনসুলেটর কর্মকর্তারা বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপনপূর্বক গত এক দশকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বিভিন্ন উন্নয়ন সূচকে বাংলাদেশ যে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে, সেগুলোর উপর ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন পরিক্রমা’ শীর্ষক দু’টি ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করেন।

অনুষ্ঠানে বর্তমান সরকার গৃহীত বিভিন্ন জনকল্যাণমুখী প্রকল্প, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় সুবিধাবঞ্চিত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে বিভিন্ন কল্যাণমূলক প্রকল্প গ্রহণ, বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকরণসহ আর্থসামাজিক উন্নয়ন নিশ্চিতে সরকারের প্রচেষ্টা ও সাফল্যের চিত্র তুলে ধরা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ‘অদম্য বাংলাদেশ’ ও ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন পরিক্রমা’ শীর্ষক দু’টি ভিডিও চিত্র পরিবেশিত হয়। স্থানীয় সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী ‘নৃতাঞ্জলী’ সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্মরণে একটি বিশেষ নৃত্য এবং ‘জয়বাংলা বাংলার জয়’ ও ‘তাকধুম তাকধুম বাজে বাংলাদেশের ঢোল’ সঙ্গীত দু’টির সুরে আরও দু’টি নৃত্যানুষ্ঠান পরিবেশন করে।

এছাড়া প্রবাসী শিল্পী এসএএম মুক্তাদিরের আবৃত্তি এবং বাংলাদেশের উপর শ্রী চিন্ময় গ্রুপের সঙ্গীত পরিবেশনা উন্নয়ন মেলায় আগত দর্শকদের মাঝে বিশেষ সাড়া ফেলে।

স্বাগত বক্তব্যে নিউইয়র্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মিজ সাদিয়া ফয়জুন্নেছা ভাষণে বলেন, “জাতির পিতা ‘সোনার বাংলা’ বলতে কী বুঝিয়েছিলেন তা আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চাই। জাতির পিতার এই সোনার বাংলা শুধু মাথাপিছু আয় বৃদ্ধিই নয় এটি হলো প্রান্তিক পর্যায় থেকে শুরু করে সর্বোচ্চস্তর পর্যন্ত সামগ্রিক 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ