তাইজুলের চোখ মুরালিধরনে

November 13, 2018, 7:59 AM, Hits: 357

 তাইজুলের চোখ মুরালিধরনে

হ-বাংলা নিউজ : টানা ইনিংসে ৫ উইকেট পেয়েছেন তাইজুল। ৫ উইকেটের ‘হ্যাটট্রিক’ই হয়ে গেছে তাঁর। তাঁর সামনে আরও কিছু দুর্দান্ত রেকর্ডের হাতছানি।

ড্রেসিংরুমে ফেরার সময় জেনে গেলেন, কী কী রেকর্ড তাঁর অপেক্ষায় আছে। সবাই যখন বারবার মনে করিয়ে দিচ্ছিল এনামুল হক জুনিয়রের রেকর্ডটা। তাইজুল ইসলাম তখন উল্টো প্রশ্ন করলেন, ‘আরে বিশ্ব রেকর্ডটার কথা বলেন। দুই টেস্টের সিরিজে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড গড়তে আমাকে আরও কয়টা উইকেট নিতে হবে?’

সিলেট টেস্টে ১১ উইকেটের পর ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট। আর ৩ উইকেট নিলেই ভেঙে যাবে এনামুল জুনিয়রের রেকর্ডটা। দুই টেস্টের সিরিজে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেটের রেকর্ডটি এনামুলের, ২০০৫ সালের জানুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিয়েছিলেন ১৮ উইকেট। আর দুই টেস্টের সিরিজে সর্বোচ্চ ২২ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে মুত্তিয়া মুরালিধরন। সবাই যখন বাংলাদেশের রেকর্ডে সীমাবদ্ধ, তাইজুল তখন ভাবছেন বিশ্ব রেকর্ড নিয়ে। বাঁহাতি স্পিনারের দৃষ্টি যে অনেক বড়, এতেই পরিষ্কার।

বিশ্ব রেকর্ডের খবরই যখন নিলেন, পাল্টা প্রশ্ন—তাইজুল পারবেন মুরালিকে টপকে যেতে? ‘বিষয়টা অনেকটাই নির্ভর করছে উইকেটের ওপর। তৃতীয় দিনেও দেখলেন তো উইকেট কেমন আচরণ করেছে! শার্প টার্ন পাইনি। হালকা টার্ন পেয়েছি আজ। কাল যদি উইকেট ভাঙে, তবে তো ভালোই হয়’—হেমন্তের সন্ধ্যায় স্বপ্নাতুর চোখে বলছিলেন তাইজুল।

এনামুল জুনিয়র কিংবা মুরালিকে টপকে যেতে পারবেন কি না, সেটি সময় বলে দেবে। তবে তাইজুল রেকর্ডের বেশ কিছু অধ্যায়ে এরই মধ্যে নাম তুলে ফেলেছেন। বাংলাদেশের তৃতীয় বোলার হিসেবে পেলেন টানা তিন ইনিংসে ৫ উইকেট। আগের দুজন সাকিব ও এনামুল জুনিয়র। সবশেষ ৮ ইনিংসের একটিতেও উইকেটশূন্য থাকতে হয়নি তাঁর, পেয়েছেন ৩১ উইকেট।

তাইজুলের সামনে টেস্টে টানা দুবার ১০ উইকেট পাওয়ার হাতছানি। তাইজুল যদি সত্যি ১০ উইকেট পেয়ে যান এই টেস্টে, দুর্দান্ত একটা রেকর্ডই হবে তাঁর। বাংলাদেশের প্রথম বোলার হিসেবে টানা দুই টেস্টে পাবেন ১০ উইকেট। ২০তম টেস্টে ৭৫ উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়েছেন। বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে ম্যাচ সংখ্যায় দ্রুততম। টেস্টে এক ইনিংসে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডটি এখনোও তাঁর, ২০১৪ সালে ঢাকা টেস্টে নিয়েছিলেন ৩৯ রানে ৮ উইকেট।

একটার পর একটা রেকর্ড হচ্ছে তাতে তাইজুলের কোনো ভাবান্তরই নেই। দলের সাফল্যই তাঁর কাছে বড়, ‘ভালো পারফরম্যান্স করলে প্রতিটা ক্রিকেটারের ভালো লাগে। তবে দল আগে। দল এখন ভালো অবস্থানে আছে, এতেই খুশি।’

এই টেস্টে যদি দল জেতে, রেকর্ডও হয়, তাইজুলের খুশির শেষ থাকবে না! 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ