মেসি না থাকায় ফিফা বিশ্বাসযোগ্যতা হারাল: ব্রাজিল তারকার মন্তব্য

September 7, 2018, 9:06 AM, Hits: 1080

মেসি না থাকায় ফিফা বিশ্বাসযোগ্যতা হারাল: ব্রাজিল তারকার মন্তব্য

হ-বাংলা নিউজ : লিওনেল মেসি ফিফা বর্ষসেরার সেরা তিনে মেসি নেই, এমন ঘটনা সর্বশেষ ২০০৬ সালে ঘটেছিল। এমন নয় গত মৌসুমে মেসি খারাপ খেলেছেন। প্রায় একাই আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গেছেন বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে। ক্লাবের হয়ে লিগ ও কাপের ডাবল জিতেছেন। ক্লাবের হয়ে তাঁর গোল ৪৫টি। মেসির শেষ তিনে না-থাকায় বিস্ময় অনেকের

লিওনেল মেসি তাঁর সবচেয়ে বড় প্রতিপক্ষের নাম। মেসির কারণে নিজে কম চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েননি। কিন্তু কিছু চ্যালেঞ্জ আছে, যেগুলোর মুখোমুখি হতেই ভালোবাসে সাহসীরা। কিছু প্রতিপক্ষ আছে, যাদের প্রতি দ্বেষ থাকে না, থাকে শ্রদ্ধা। সেই শ্রদ্ধার জায়গা থেকেই ফিলিপে লুইস বলছেন, এবারের ফিফা বর্ষসেরার সেরা তিনে লিওনেল মেসির নাম না-থাকাটা অন্যায়। এতে ফিফা অ্যাওয়ার্ডের বিশ্বাসযোগ্যতা খর্ব হয়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

ফিফা এই সপ্তাহে বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের সেরা তিনজনের নাম প্রকাশ করেছে। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, মডরিচ ও মোহাম্মদ সালাহ তাতে জায়গা করে নিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। এখনো চূড়ান্ত ফল ঘোষণা হয়নি। তবে এই তিনজনের মধ্যেই কোনো একজন পাবেন। মেসি পাচ্ছেন না নিশ্চিত। তবে ফিফা বর্ষসেরার সেরা তিনে মেসি নেই, এমন ঘটনা নিকট অতীতে ঘটেনি। ২০০৬ সালে ঘটেছিল সর্বশেষ।

এমন নয় গত মৌসুমে মেসি খারাপ খেলেছেন। প্রায় একাই আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গেছেন বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে। বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ডে আর্জেন্টিনা বাদ পড়েছে, তবে ক্লাবের হয়ে লিগ ও কাপের ডাবল জিতেছেন। ক্লাবের হয়ে তাঁর গোল ৪৫টি। এমন খেলেও সেরা তিনে মেসির জায়গা হবে না, মানতে পারছেন না অনেকেই। ফিলিপে লুইসও আছেন তাঁদের মধ্যে।

ব্রাজিল ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের এই ডিফেন্ডার বলেছেন, সেরা তিন নয়, মেসি সবার সেরা, ‘এই পুরস্কার দেওয়া হয় বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়টিকে। আর আমার মতে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়ের নাম মেসি। সেটা আজ, গত বছর, দুই বছর আগে, তিন বছর আগের জন্যও। এত কিছু করার পরও এই পুরস্কার যদি মেসি না জেতে, তখন থেকেই এই পুরস্কার তার বিশ্বাসযোগ্যতা কিছুটা হারাবে।’

কিন্তু মেসি তো চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতেননি। শুধু লিগ আর কাপ জিতেছেন। বিশ্বকাপেও ব্যর্থ। সেখানে মডরিচ, রোনালদো দুজন চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন টানা তৃতীয়বারের মতো। মডরিচ তো ক্রোয়েশিয়াকে ফাইনালে তুলে বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ও হয়েছেন। সেদিক দিয়ে দেখলে মোহাম্মদ সালাহর অর্জন অবশ্য মেসির তুলনায় কম। ক্লাবের হয়ে বড় কোনো ট্রফি জেতেননি। তবে গোল করেছেন ৪৪টি। অনেকের চোখে সালাহর সেরা তিনে থাকাটা যথাযথ হয়নি।

তবে লুইসের ব্যাখ্যাটা একটু অন্য রকম, ‘একজন খেলোয়াড় চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছে, অন্যজন ফাইনালে উঠেছে, তাতে কী? আমার চোখে মেসিই বিশ্বের সেরা। আর সেই সেরাটা সে অনেক বছর ধরেই হয়ে আছে। মানছি নেইমার একদিন ওই পর্যায়ে যাবে, সালাহও হয়তো সেরা তিনে থাকার দাবিদার, ক্রিস্টিয়ানোও। তবে প্রতিটা ম্যাচে মেসি যে খেলাটা খেলে, আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই, মেসিই পৃথিবীর সেরা খেলোয়াড়।’ 

 
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ