কিশোরদের প্রথম ভিডিও-ছবি প্রকাশ

July 11, 2018, 7:50 PM, Hits: 84

কিশোরদের প্রথম ভিডিও-ছবি প্রকাশ

হ-বাংলা নিউজ :  প্রথমবারের মতো দেখা মিলল থাইল্যান্ডের গুহা থেকে উদ্ধার হওয়া কিশোর ফুটবলারদের। আজ বুধবার প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে, চিয়াং রাই হাসপাতালের বেডে তারা বসে আছে। মুখে মাস্ক ও হাসপাতালের গাউন পরা অবস্থায় তাদের ছবি প্রকাশ করা হলো। 

গ্লাসের বাইরে অপেক্ষারত পরিবারের সদস্যদের বিজয়সূচক চিহ্ন দেখাচ্ছিলেন ইতিমধ্যে আলোচনার জন্ম দেওয়া কিশোর ফুটবলাররা। 

এদিকে বুধবার নেভি সিল ফুটবলার ও কোচকে উদ্ধারকাজের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। 

১১ থেকে ১৬ বছর বয়সী ওই কিশোরদের হাসপাতালের বিশেষ কেবিনে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। চিকিৎসকেরা এখনো তাদের স্বাস্থ্য নিয়ে কিছুটা উদ্বিগ্ন। সংক্রমণ ছড়ানোর ভয়ে তাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, গ্লাসের মধ্য দিয়ে সন্তানদের দেখে কান্নায় ভাসছিলেন পরিবারের সদস্যরা।

মৃত্যুকূপ থেকে ঝুঁকিপূর্ণ ও বিস্ময়কর উদ্ধার অভিযান শেষের পরই থাইল্যান্ডের নেভি সিলের ফেসবুক পেজে এক পোস্টে বলা হয়েছে, ‘গুহায় আটকে পড়া ১৩ জনকে বের করে আনা হয়েছে। আমরা জানি না এটা অলৌকিক ঘটনা, নাকি বিজ্ঞানের সাফল্য, নাকি অন্য কিছু?’

সন্তানদের দেখে আপ্লুত মা-বাবা। ছবি: বিসিসি

সন্তানদের দেখে আপ্লুত মা-বাবা। ছবি: বিসিসি

সন্তানদের দেখে মা-বাবার চোখে অশ্রু

থাইল্যান্ডে গুহা থেকে উদ্ধার হওয়া কিশোর ফুটবলারদের সঙ্গে অবশেষে সাক্ষাতের সুযোগ পেলেন তাদের মা-বাবা। বুধবার তাদের প্রথম সাক্ষাৎ ছিল আবেগঘন, অশ্রুসিক্ত। সন্তানকে দেখে অনেক মা-বাবা তাদের অশ্রু ঠেকাতে পারেননি। দূর থেকে সন্তানকে দেখার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল মা-বাবাকে। তাই সন্তানদের বুকে জড়িয়ে ধরে আদর করার সুযোগ তাঁরা পাননি।

থাইল্যান্ডের চিয়াং রাই প্রাচানুকরহ হাসপাতালে ১২ কিশোর ও তাদের ২৫ বছরের কোচ চিকিৎসাধীন রয়েছে। হাসপাতালে সন্তানের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য মা-বাবাকে পরানো হয় হাসপাতালের মাস্ক, গাউন ও সুরক্ষা গ্লাস। নিকষ কালো গুহায় প্রায় তিন সপ্তাহ আটকে থাকা কিশোরদের বয়স ১১ থেকে ১৬ বছর। সঙ্গে ছিলেন কিশোরদের ফুটবল দল ওয়াইল্ড বোয়ারসের ২৫ বছরের কোচও।

চিকিসৎকেরা বলেছেন, কিশোরদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে এখনো উদ্বেগ থাকায় নিয়ন্ত্রিত পরিবেশের মধ্য দিয়ে আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে দেখার অনুমতি দেওয়া হয়।

ওই হাসপাতালে প্রেস ব্রিফিংয়ের সময় প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, চোখে কাচের গ্লাস থাকলেও সন্তানের অবস্থা দেখে অনেকের মা-বাবা কান্না থামাতে পারেননি। কিশোরদের চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা একজন চিকিৎসক বলেন, যেখানে কিশোরদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে, সেখানে পরিবারের সদস্যদের প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি সংক্রমণের কারণে। বালকদের মধ্যে তিনজনকে নিউমোনিয়ার চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে অধিকাংশ বালককে প্রায় এক সপ্তাহ পর হাসপাতাল ছাড়ার অনুমতি দেওয়া হতে পারে।

গুহা এলাকায় হবে জাদুঘর

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে উদ্ধার অভিযানের প্রধান নারোংসাক অসোতানাকর্ন বলেন, এ ঘটনাকে স্মরণীয় করে রাখতে ওই এলাকায় একটি জাদুঘর প্রতিষ্ঠা করা হবে। তিনি বলেন, এ এলাকা একটি জীবন্ত জাদুঘর হবে। কীভাবে অভিযান শুরু করা হয়েছিল তা সেখানে দেখানো হবে। কার্যকর ডেটাবেস–ব্যবস্থাও গড়ে তোলা হবে।

কিশোরদের জন্য নানান উপহার

‘জয়ের সমান’ মর্যাদা পাচ্ছে গুহা থেকে উদ্ধার থাইল্যান্ডের কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচ। নামীদামি খেলোয়াড়ের জার্সি, ক্লাবে ভ্রমণ প্রস্তাব ও ফুটবল টুর্নামেন্টের ম্যাচ টিকিটের প্রস্তাব আসছে তাদের কাছে। বিশ্বকাপ চলার সময় খুদে ফুটবলারদের থাইল্যান্ডের থাম লুয়াং নামে বিপজ্জনক গুহায় আটকে পড়ার ঘটনা ঘটে। ফলে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তাদের প্রতি এসেছে সহমর্মিতা ও ভালোবাসা।

রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে বেলজিয়ামকে হারানোর পর সেই জয় থাই কিশোর ফুটবলারদের জন্য উৎসর্গ করেন ফ্রান্সের মিডফিল্ডার পল পগবা। তাঁর টুইটে, ‘এই জয় উৎসর্গ করছি দিনের নায়কদের জন্য, দারুণ করেছে ছেলেরা; তোমরা ভীষণ শক্ত।’

বুধবার ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে সেমিফাইনাল খেলতে মাঠে নামার আগে ইংল্যান্ডের ডিফেন্ডার কাইল ওয়াকার ও গোলকিপার জ্যাক বাটল্যান্ড ওই বালকদের জন্য জার্সি পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছেন। গুহায় আটকা বালকদের মধ্যে ইংল্যান্ডের জার্সি পরা একজনের ছবিসহ ওয়াকার টুইট করেন, ‘দারুণ খবর, থাইল্যান্ডের সব শিশু নিরাপদে গুহা থেকে বের হয়েছে।’

এর আগে ব্রাজিলের সাবেক তারকা স্ট্রাইকার রোনালদো উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত শিশুদের দৃঢ় মনোবল ধরে রাখতে আহ্বান জানান। ইতালিয়ান ক্লাব এএস রোমা এই সফল অভিযানকে এই গ্রীষ্মের সেরা ফুটবল নিউজ হিসেবে আখ্যা দেয়। কিশোর ফুটবলারদের উদ্ধার করতে গিয়ে নিহত থাই নেভি সিলের একজন সাবেক ডুবুরিকে সত্যিকারের নায়ক হিসেবে অভিহিত করা হয়।

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা ওই খুদে ফুটবলারদের ফাইনাল খেলা দেখার প্রস্তাব দিয়েছিল। চিকিৎসার জন্য তাদের আরও কিছুদিন হাসপাতালে থাকতে হবে বিধায় তারা ফাইনাল খেলা মাঠে বসে দেখতে পারবে না। এখন ফিফা বলছে, ফিফার নতুন কোনো অনুষ্ঠানে বালকদের আমন্ত্রণ জানানোর জন্য সুযোগ সৃষ্টির বিষয়টি তারা খুঁজে দেখছে।

স্পেনের জায়ান্ট ক্লাব বার্সেলোনা তাদের ক্লাব একাডেমির আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়ার জন্য থাই দলটিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে এবং ন্যু ক্যাম্পে একটি ম্যাচ দেখারও প্রস্তাব দিয়েছে। ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও দলটিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

গত ২৩ জুন থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলীয় চিয়াং রাই এলাকার থাম লুয়াং গুহায় বেড়াতে গিয়ে নিখোঁজ হয় ১২ খুদে ফুটবলার ও তাদের কোচ। ১২ কিশোরের বয়স ১১ থেকে ১৬ বছরের মধ্যে। তাদের সহকারী কোচ এক্কাপোল জানথাওংয়ের বয়স ২৫ বছর। তারা ওয়াইল্ড বিয়ার্স বা মু পা নামের একটি ফুটবল দলের সদস্য। নয় দিন গুহার ভেতরে আটকে থাকার পর ২ জুলাই ব্রিটিশ ডুবুরি রিচার্ড স্ট্যানটন ও জন ভলানথেন তাদের সন্ধান পান। অবস্থান জানার পর ১২ কিশোর ও তাদের কোচের জন্য গুহার ভেতরে পর্যাপ্ত অক্সিজেন সরবরাহ করার পাশাপাশি পাঠানো হয় খাবার ও চিকিৎসা সরঞ্জাম। তবে গত বৃহস্পতিবার রাতে কিশোরদের কাছে অক্সিজেনের সরঞ্জাম পৌঁছে দিয়ে ফেরার পথে প্রাণ হারান থাই নৌবাহিনীর সাবেক ডুবুরি সামান কুনান। ৭ জুলাই অস্ট্রেলিয়ার এক চিকিৎসক গুহায় ঢুকে কোচ ও কিশোরদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে উদ্ধার অভিযান শুরুর সবুজসংকেত দেন। তাদের অবস্থানস্থলে যাওয়ার জন্য ওই পাহাড়ে শতাধিক গর্ত করা হয়। তবে সেখানে কিশোরদের না পেয়ে আগের পরিকল্পনামতো ডুবসাঁতার দিয়ে তাদের উদ্ধারে চূড়ান্ত অভিযান শুরু হয় ৮ জুলাই। প্রথম দিন চারজন ও দ্বিতীয় দিন চারজন আর তৃতীয় দিন মঙ্গলবার চার কিশোরসহ তাদের কোচকে উদ্ধার করা হয়।  

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ