ফিনল্যান্ডে প্রবাসীদের হারিয়ে যাওয়ার একটি দিন

August 9, 2017, 10:35 AM, Hits: 834

ফিনল্যান্ডে প্রবাসীদের হারিয়ে যাওয়ার একটি দিন

হ-বাংলা নিউজ: আমি হারিয়ে যাব, হারিয়ে যাব আমি। দল বেঁধে কিংবা একাকী নিজের মতো থাকব। সংসার-ক্লাস-পরীক্ষা-কর্মব্যস্ততাকে ছুটি দিয়ে যান্ত্রিকতার শহর ছেড়ে বন ও লেকের দেবীর কাছে পাড়ি জমাব।

গ্রীষ্ম এলেই বনভোজনের ধুম পড়ে ফিনল্যান্ডে। এ সময় স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, অফিস, পাড়া-মহল্লা এমনকি পরিবারের সবাই মিলে আনন্দময় কিছুটা সময় কাটানোর জন্য সবাই বেরিয়ে পড়েন। তবে সে জন্য জায়গাটি সঠিক হলে বনভোজন হয়ে ওঠে আনন্দে ভরপুর।

গত সোমবার (৭ আগস্ট) ফিনল্যান্ডের রাজধানী হেলসিংকির অদূরে বন-লেক আর পাহাড়ের অপূর্ব সম্মিলন তুসুলাতে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় মসজিদের আয়োজনে হয়ে গেল জমজমাট পিকনিক। এটি ছিল প্রবাসীদের আনন্দে ভাসার স্মরণীয় একটি দিন। পিকনিক স্পটের আঙিনায় ছিল আনন্দের বন্যা। হই হুল্লোড় মাতিয়ে রাখল এক এক করে সবাইকে। দিনটি স্মৃতি হয়ে থাকল ক্যালেন্ডারের পাতাও।

বনভোজনে অংশগ্রহণকারীদের একাংশ

সুস্বাদু নাশতা দিয়ে শুরু হয় দিনটি। তারপর দুপুরে পরিবেশিত হয় বিরিয়ানি ও সালাদসহ কত কী। তারপর ক্লান্ত ও পরিশ্রান্ত বিকেলে গ্রিলে ছিল বারবিকিউ হটডগ, মুরগি ও ভেজিটেবল ইত্যাদি। রসনা ভর্তি খাবার খেয়ে অতিথিরা তৃপ্তির ঢেকুর তোলেন।

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রাত্র ঘনিয়ে এলে পিকনিকের আনন্দ পরিসমাপ্তি ঘটে। ব্যাপক আনন্দ আর সুখ স্মৃতি নিয়ে প্রবাসীরা নিজ নিজ ঘরে ফিরে যান বনভোজনের উদ্যোক্তা বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় মসজিদ কমিটিকে কৃতজ্ঞতা আর ধন্যবাদ দিয়ে।

এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বদরুল মুনির, কামরুল আলম, লিমন চৌধুরী, নাসির খান, নাজমুল হুদা, মাহবুবুল আলম, জহুরুল ইসলাম শিকদার, মসজিদের পেশ ইমাম বশির আহমেদ, আবুল হাসেম চৌধুরী, মো. হারুন উর রশীদ, মোস্তফা আজাদ, এনামুল হক, শওকত আলী, শরিফ বিশ্বাস, হাসিব সরকার, খালেদুল ইসলাম, রেজাউল ইসলাম, আবুল কালাম, তপন বংগবাসী, আবদুল লতিফ, আবুল কালাম আজাদ, এহসান মনজু, জামান সরকার, মবিন মোহাম্মদ, মোকলেসুর রহমান, বদরুম ফেরদৌস, তাপস খান, মোহাম্মদ শাহিন, সামসুল গাজি, মাইনুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, আবদুল্লাহ আল আরিফ, নাজমুল হাসান, মাহফুজ রহমান, আনোয়ার হোসেন, ওজায়ের মো. উজ্জ্বল ও কিউট সোহেল প্রমুখ। 

 
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ